সাত দফা দাবিতে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

রাজধানী টাইমসের সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা ঢাকা কলেজের মূল ফটকের সামনে মানববন্ধন করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৯টার দিকে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করে। মূলত ঢাবির অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রার ভবনে হয়রানি, ফলাফল প্রকাশে বিলম্ব, শিক্ষকসংকট, ক্লাসরুম সংকট, একাডেমিক ক্যালেন্ডারের যথাযথ প্রণয়ন না করাসহ সাত দফা দাবিতে এই বিক্ষোভ করেছে।

মানববন্ধনের বিষয়ে জানতে চাইলে, সরকারি সাত কলেজের ছাত্র প্রতিনিধি তছলিম চৌধুরী জানান, গত ২১ মে রবিবার আমরা সাত কলেজ সমন্বয়ক সুপ্রিয়া ভট্টাচার্য ম্যাডামের স্বাক্ষরিত সাত কলেজের কিছু দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার ভবনে যাই এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শ্রদ্ধেয় বাহালুল হক স্যারের সাথে দেখা করার জন্য আবেদন করি।

বিজ্ঞাপন

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের একান্ত সচিব আমাদের কথা বাহালুল হক স্যারকে জানালে তিনি আমাদের সাথে দেখা করতে অস্বীকৃতি জানান, আমরা কল দিলে ওনি রেসপন্স না করে, আমাদের এই রুম থেকে ওইরুমে পর্যায়ক্রমে পাঠায়, আমাদের ৩৪৫ নং রুমে পাঠালে ওখান থেকে ৩৪৬ নং রুমে পাঠিয়েছে পরে ওই রুমে গেলে তারা ৩৫০ নং রুমে পাঠায় এক পর্যায়ে তারা আমাদের হয়রানি করতে শুরু করে এবং আমাদের সাথে তামাশাসহ অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এরই প্রতিবাদে ও সাত কলেজের সাত দফা দাবি তে আমরা মানববন্ধনের ডাক দিই। মানববন্ধন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে আমরা ঢাবি  কর্তৃপক্ষকে কঠোরভাবে বার্তা দিতে চাই, সাত কলেজ নিয়ে তামাশা করা বন্ধ করতে হবে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে হবে।

সাত কলেজের সাত দফা দাবিগুলো হল:

১* ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার বিল্ডিং এ সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের হয়রানির কারণ ব্যাখ্যা করতে হবে এবং শিক্ষার্থীদের হয়রানি বন্ধ করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

২* যে সকল শিক্ষার্থী পরবর্তী বর্ষের ক্লাস, ইনকোর্স পরীক্ষা ও টেস্ট পরীক্ষা পর্যন্ত অংশগ্রহণ করার পর জানতে পেরেছেন নন- প্রমোটেড তাদের সর্বোচ্চ ৩ বিষয় পর্যন্ত মানোন্নয়ন পরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তী বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষার সুযোগ দিতে হবে।

৩* সকল বিষয়ে পাশ করার পরও একটা স্টুডেন্ট সিজিপিএ সিস্টেম এর জন্য নন প্রোমোটেড হচ্ছেন। সিজিপিএ শর্ত শিথিল করতে হবে।

৪*বিলম্বে ফলাফল প্রকাশের কারণ ও এই সমস্যা সমাধানে কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে তার ব্যাখ্যা দিতে হবে। সর্বোচ্চ তিন মাস (৯০ দিনের মধ্যে) ফলাফল প্রকাশ করতে হবে।

৫* সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রাতিষ্ঠানিকভাবে অভিভাবক কে/ কারা? কোথায় তাদের সমস্যাসমূহ উপস্থাপন করবে? তা ঠিক করে দিতে হবে।

৬* একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রনয়ণ ও তার যথাযথ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে হবে।

৭*শিক্ষক সংকট, ক্লাসরুম সংকট নিরসনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল rajdhanitimes24.com এ লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয়- মতামত, সাহিত্য, ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার ছবিসহ লেখাটি পাঠিয়ে দিন rajdhanitimes24@gmail.com  এই ঠিকানায়।

শীর্ষ সংবাদ:
রাফায় ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, ১৭ ফিলিস্তিনি নিহত ড্রেনেজ সংস্কারের নামে ১১’শ কোটি টাকা জলে, সিসিকের মেয়রকে দুষছেন নগরবাসী দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর ঢাকা সিলেটের নদ-নদীতে হু হু করে বাড়ছে পানি অতীতের চেয়ে বর্তমান ছাত্রলীগ অনেক শক্তিশালী মিয়ানমার সীমান্ত সরকারের কঠোর নজরদারিতে: কাদের কাউখালীতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে কামার শিল্পীরা সিলেট সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নগরকান্দার তালমা ইউনিয়নে ভিজিএফের চাল বিতরন সিলেটের শুল্ক স্টেশন গুলোতে চুনাপাথর আমদানিতে বেড়েছে রাজস্ব আদায় কাউখালীতে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে গরুর হাট, পশুর আমদানি প্রচুর, ক্রেতা কম বর্তমান সরকার গরীব অসহায় দুস্থদের সরকার- মেয়র শেখ আ: রহমান ঈদের ৩ দিন আগেও যেসব এলাকায় ব্যাংক খোলা ঈদযাত্রায় সড়কে চাপ আছে, যানজট নেই: ওবায়দুল কাদের লালমোহনে দুই বন্ধুর গণধর্ষণের শিকার কিশোরী তানোরে পৃথক ঘটনায় ৩ জনের অপমৃত্যু শ্রীপুরে র‌্যাব পরিচয়ে ১৯ লাখ টাকা ছিনতায়ের ঘটনায় ৫ ডাকাত গ্রেফতার লালমোহনে অটোরিকশার চাকায় পৃষ্ট হয়ে ৫ বছরের শিশু নিহত দেখতে ঘাসের চাঁদরে ঢাকা, আসলে স্কুল মাঠে পানিতে ভাসছে ক্ষুদিপানা