নওগাঁয় গৃহবধূর মাথার চুল কেটে নির্যাতন, আটক ৩

নওগাঁর রাণীনগরে এক গৃহবধূ (১৯) কে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মারপিট করে বটি দিয়ে মাথার চুল কেটে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। এ সময় ওই গৃহবধূর স্বামীকেও মারপিট করেছেন তারা। রবিবার দিনগত রাত ১০ টার দিকে উপজেলার কালীগ্রাম কয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহবধুর শ্বশুর কালীগ্রাম কয়াপাড়া গ্রামের রাজ্জাক সিপাই (৬০), ভাসুর দেলোয়ার হোসেন (৩৫) ও ননদ রাজিয়া সুলতানা (৩৮) কে আটক করেছে থানা পুলিশ।

গৃহবধূর স্বামী রেজাউল করিম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে আমার এক বন্ধুকে নিয়ে আমি ও আমার স্ত্রী এবং ওই বন্ধু মিলে একসাথে বাড়িতে রাতের খাবার খাচ্ছিলাম। এ সময় আমার স্ত্রীর ঘরে পরপুরুষ ঢুকেছে এমন সন্দেহে বাহির থেকে আমার পরিবারের লোকজন বাড়ির দরজায় শিকল তুলে দেয়। এরপর আমাদের খাবার খাওয়া শেষে আমি বাহিরে ডাকাডাকি করলে আমার বাবা, বড় ভাই, বোন ও ভাবি শিকল খুলে দিয়ে সন্দেহ করে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মারপিট করে। এ সময় আমার স্ত্রীর উপর মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমার শ্বশুরের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে শুক্রবার শ্বশুর বাড়ির লোকজন আমার বাড়িতে এলে তাদের সাথে আমার স্ত্রীকে তারা বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও জানান, রবিবার সকালে আমি আমার স্ত্রীকে নিতে শ্বশুরবাড়ি আদমদিঘী উপজেলার কালাইকুলি পালোয়ানপাড়া গ্রামে যাই। শ্বশুর বাড়ি থেকে স্ত্রীকে নিয়ে এলে এদিন রাত ৮ টার দিকে বাড়িতে আসি। এরপর বাড়িতে ঢুকতে লাগলে আমার বাবা, বড় ভাই, বড় বোনসহ আমার পরিবারের লোকজন আমাকেসহ আমার স্ত্রীকে মারপিট করতে থাকেন। এ সময় তারা বটি দিয়ে আমার স্ত্রীর মাথার চুল কেটে নির্যাতন করেন।

নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ জানান, বিয়ের পর থেকেই মাঝে মধ্যেই শ্বশুর বাড়ির লোকজন আমাকে মানসিক নির্যাতন করতো। এদিন তারা মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমাকে মারপিট করাসহ আমার মাথার চুল কেটে নির্যাতন করেছেন। এ ঘটনায় আমি বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছি। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছেন নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ।

এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বলেন, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে সোমবার থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহবধূর শশুর, ভাসুর ও ননদকে আটক করেছে থানা পুলিশ। এবং মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন

শীর্ষ সংবাদ:
স্মার্ট গ্র্যাজুয়েট তৈরির পাশাপাশি স্মার্ট খামারি গড়ে তুলতে হবে: বাকৃবি উপাচার্য সিলেট ও নাটোরের দুই ছাত্রীর বিয়ে নিয়ে তোলপাড় ভূরুঙ্গামারীতে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে নৈশ কোচের ধাক্কায় প্রাণ গেল হেলপারের শরণখোলায় ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষনের শিকার এবার পালিয়ে বাংলাদেশে এসেছে আরকান আর্মির ৫ সদস্য লালমোহনে আমের মুকুলের ঘ্রাণে ভরে উঠেছে বাগানগুলো অসামাজিক কার্যক্রম চালানোর দায়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বোনসহ আটক ৪ কিশোরগঞ্জে বাকৃবির কৃষি প্রকৌশলীদের সম্প্রসারণ মাঠ সফর গাজীপুরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কয়েক ঘন্টা পরই ফের দখল নরসিংদীতে বাস-কাভার্ডভ্যানের সংঘর্ষ, ২ চালক নিহত ভারতীয় যুবক কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে পালকিতে বর-কনে, গরুর গাড়িতে বরযাত্রী রুদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে আমীর খসরু বললেন ‘কিছুই বলার নেই’ বড় দুঃসংবাদ পেল ইমরান খানের পিটিআই গাজীপুরে ভবনের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু ৩৮ বছর পর বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের রেকর্ড ১৩ বছর পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হলো না, র‍্যাবের হাতে ধরা তানোরে আলুর দাম নিয়ে কৃষকদের দুশ্চিন্তা মহাসড়কে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ অভিযান টেকনাফে হোয়াইক্যংয়ে এক দিন মজুরকে পিঠিয়ে হত্যা