তানোরে ওহাবের মৃত্যু অস্বাভাবিক না হত্যা !

রাজশাহীর তানোরে সম্পত্তির দখল ঠেকাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুত্বর জখম আব্দুল ওহাবের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয়রা এটাকে পরিকল্পিত হত্যা অভিহিত করে নেপথ্যের মদদদাতা হিসেবে জনৈক ইউপি চেয়ারম্যানের দিকে অভিযোগের তীর ছুড়েছে। তারা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান চাইলেই এমন অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে পারতেন।

তানোরের পাঁচন্দর ইউপির কৃষ্ণপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, উপজেলার পাঁচন্দর ইউনিয়নের (ইউপি) কৃষ্ণপুর মৌজায়, আরএস ৩০৪ নম্বর খতিয়ানের আরএস ১৩৮৭ দাগে প্রায় ৫ বিঘা দীর্ঘদিন ধরে শান্তিপুর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছেন কৃষ্ণপুর গ্রামের আব্দুল ওহাব।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, চলতি বছরের ১৯ জুন রোববার সকালে জমিতে চাষ করতে যায় ওহাব। এসময় জনৈক ইউপি চেয়ারম্যানের মদদে কৃষ্ণপুর গ্রামের আব্দুল হান্নান ওরফে হারানার পুত্র সাজু, গনি ও মহিবুল, সাজুর পুত্র আরিফ, মহিবুলের পুত্র হেলাল মৃত আবুল হোসেন ওরফে আবুর পুত্র আজাদ ও আজিবুর দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আব্দুল ওহাবের ওপর হামলা করে। এক পর্যায়ে ওহাব সজ্ঞাহীন হয়ে পড়লে মৃত ভেবে তাকে জমিতে ফেলেই তারা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ওহাবের স্বজনরা তাকে সজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসেন।কিন্ত্ত তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকরা রামেক হাসপাতালে প্রেরণ করে, সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইদুল আযহার দিনে তার মৃত্যু হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার কৃষ্ণপুর নিমকুড়ি এলাকায় প্রায় ৫ বিঘা জমি ৯৯ বছরের জন্য লীজ নিয়ে চাষাবাদ করেন কৃষ্ণপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন। কিন্ত্ত তিনি মারা গেলে তার পুত্র আব্দুল ওহাব দিগরের নামে চেক কাটা হয়।

নিহত ওহাবের ভাই আব্দুল্লাহ হিল কাফি জানান, ১৯৮০ সালে জমি নিয়ে আদালতে মামলা করা হয়, যাহার মামলা নম্বর ৩১১/৮০। তিনি বলেন, এছাড়াও ভুমি অফিসে একাধিকবার বসা হয়েছে প্রতিপক্ষ কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারে নি, এমনকি ভুমি অফিস থেকে যারাই জমি দেখতে এসেছে তাদেরকেই লাঞ্ছিত করেছে প্রতিপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন,প্রতিপক্ষের দাবি তাদের নামে উক্ত সম্পত্তি ১৯২২ সালের রেকর্ড আছে, কিন্তু ৬২ ও ৭২ সালের কোনো রেকর্ড নাই। জনৈক ইউপি চেয়ারম্যানের মদদে তারা জোরপুর্বক জমির দখল নিতে গিয়ে আব্দুল ওহাবকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক গ্রামবাসি বলেন, জনৈক ইউপি চেয়ারম্যান ওই জমির দখল নিতে তার অনুগত বাহিনীর লোকজনকে লেলিয়ে দিয়েছে, তার ওহাব হত্যার দায় সে এড়াতে পারে না।

এবিষয়ে পাঁচন্দর ইউপি যুবলীগের সম্পাদক মোসারফ হোসেন আমি ভাবতেই পারছি না যারা আমাদের পরিবারে কাজ করতো তারাই আমার চাচাকে হত্যা করলো, এর চেয়ে দুঃখের বিষয় আর কি হতে পারে। এবিষয়ে পাঁচন্দর ইউপি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন বলেন, এঘটনায় তিনি বা তার লোকজন সম্পৃক্ত নাই।

তিনি বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে বিচার হোক সেটা তিনি চান। এবিষয়ে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি কামরুজ্জামান মিয়া জানান, যিনি মারা গেছেন তিনি আগের এক মামলার বাদি ছিলেন, তার লাশ ময়না তদন্ত করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি বলে জানান তিনি।

শীর্ষ সংবাদ:
বড় দুঃসংবাদ পেল ইমরান খানের পিটিআই গাজীপুরে ভবনের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু ৩৮ বছর পর বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের রেকর্ড ১৩ বছর পালিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা হলো না, র‍্যাবের হাতে ধরা তানোরে আলুর দাম নিয়ে কৃষকদের দুশ্চিন্তা মহাসড়কে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ অভিযান টেকনাফে হোয়াইক্যংয়ে এক দিন মজুরকে পিঠিয়ে হত্যা চাটমোহর উপজেলা আ. লীগ সভাপতির মৃত্যুতে এমপি মকবুলের শোক ঝিনাইদহে অবৈধভাবে মাটি কাটা ও বিক্রির অপরাধে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা জয়পুরহাটে পুলিশ সুপার ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়: ফুল দেওয়াতে সীমাবদ্ধ শিক্ষক সমিতির কার্যক্রম কালাইয়ে ৫৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটিতেও নেই ম্যানেজিং কমিটি শেরপুরে ২০ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার, ১৯ শিক্ষককে অব্যাহতি বাকৃবিতে নারী শিক্ষার্থীকে উত্ত্যক্ত করায় তিন বহিরাগতকে মারধর ভাঙ্গুড়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য, গৃহবধূর আত্মহত্যা রাজশাহীতে বড়ছে বীজ পেঁয়াজ চাষ রমজানে দ্রব্যমূল্য বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: সালমান এফ রহমান শিক্ষার মাধ্যম হউক মাতৃভাষায় অক্ষুন্ন থাকুক ভাষার মর্যাদা নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে গুলির শব্দ নেই, মাঠে ফিরেছেন কৃষকরা মাদারীপুরে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৫