গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য কাচারি ঘর বিলুপ্তির পথে

রাজধানী টাইমসের সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

ডিজিটাল ও স্মার্ট তথ্য প্রযুক্তির ছোঁয়ায় গ্রাম বাংলার কৃষ্টি কালচারের সাথে সম্পর্কিত কাচারি ঘর এখন প্রায় বিলুপ্তির পথে। এক সময় কাচারি ঘর ছিল গ্রামের আভিজাত্যের প্রতীক। বাড়ির আঙ্গিনার কাচারি ঘর তখন অতিথিরা থাকত। বিশেষ করে গ্রাম্য সালিসি বৈঠক বসত এই কাচারি ঘরে।

কাচারি ঘরটি মূল বাড়ির বাইরে থাকার কারণে এই ঘরটি বাড়ির সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলত। এ ঘরেই অনেক সময় রাত যাপন করতেন বাড়িতে বেড়াতে আসা অতিথি, পথচারী, মুসাফির কিংবা আত্মীয়স্বজনরা। অনেক সময় বাড়ির প্রাইভেট মাস্টাররাও থাকতেন এই ঘরে। অনেক বাড়ির কাচারিতে স্কুল কলেজগামী ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা করতেন। অনেক সময় সকালে এটিকে মক্তব হিসেবে ব্যবহার করা হতো। আধুনিকতার ছোঁয়ায় বাড়ির সৌন্দর্য এ কাচারি ঘর এখন আর তেমন চোখে পড়ে না। ঐ সময় যাদের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল তাদের প্রায় বাড়িতেই কাচারি ঘর ছিল।

শালিস_বিচারসহ গ্রামের সকল সামাজিক কাজগুলো পরিচালিত হতো কাচারিঘর থেকেই। জমিদারি প্রথা বিলুপ্তির পরও এদেশে অধিকাংশ বাড়িতেই কাচারি ঘরের প্রচলন ছিল। এখন আর গ্রাম গঞ্জের সেই পুরনো দিনের ঐতিহ্য কাচারি ঘর তেমন আর চোখে পড়ে না।

বিজ্ঞাপন

পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার ৪৫ টি গ্রামের মধ্যে দুই একটা বাড়িতে কাচারি ঘর দেখা গেলেও সেগুলো অযত্নে অবহেলায় পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এখন আর তেমন ব্যবহার হয় না। নেই সেই পুরনো দিনের কাচারি ঘরের মধ্যে গল্প আড্ডা কিংবা রাত জেগে বিভিন্ন জারি সারি গান বাজনা, তাস ও লুডু খেলা আসর।

উপজেলার বিশিষ্ট সমাজসেবক শিক্ষা অনুরাগী আব্দুল লতিফ খসরু বলেন,ওই সময় কাচারি ঘরে সমাজের সকল প্রকার সামাজিক কার্যকলাপ চলত। আমাদের প্রত্যেকের উচিত সমাজের পুরাতন স্মৃতিগুলো ধরে রাখা।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এখন আধুনিক ও ডিজিটাল যুগের কারণে গ্রাম গঞ্জের বিত্তমানরা শহরের গিয়ে বাড়ি করছে। তারা আর গ্রামের দিকে খেয়াল রাখছে না। গ্রামের অনেক ছেলেমেয়েরা লেখাপড়া করে দেশের বাইরে চাকরিসহ বাড়ি গাড়ী করছে। পূর্বপুরুষের ঐতিহ্য কাচারি ঘরের দিকে তেমন একটা নজর দিচ্ছে না বর্তমান যুগের ছেলেমেয়েরা। ফলে কাচারি ঘরের কোন কার্যক্রম এখন আর চলমান নেই।

বিজ্ঞাপন

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল rajdhanitimes24.com এ লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয়- মতামত, সাহিত্য, ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার ছবিসহ লেখাটি পাঠিয়ে দিন rajdhanitimes24@gmail.com  এই ঠিকানায়।

শীর্ষ সংবাদ:
সঞ্জীবা গার্ডেনের সেপটিক ট্যাংকে মিলল ৪ দলা মাংস এমপি আনারের মরদেহের মাংস উদ্ধারের দাবি অপরাধী হলে আজিজ-বেনজীরের বিচার হবে: ওবায়দুল কাদের বিমানের নতুন এমডি জাহিদুল ইসলাম বাবা হত্যার প্রমাণ চান এমপি আনারকন্যা ডরিন আঘাত হানতে শুরু করেছে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে লালমোহনে রাতের আধারে ৩০টি দোকান ভাংচুর ও লুটপাট কাউখালীতে পাঁচ বছরেও শেষ হয়নি সেতু নির্মাণ কাজ। জনগণের ভোগান্তি চরমে ছাত্রদলের হামলায় ছাত্রদল নেতা সবুজ গুরুতর আহত মেয়াদোত্তীর্ণ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ, খুব দ্রুত হবে তৃতীয় সম্মেলন ঘূর্ণিঝড় রেমাল সতর্কতায় কোস্টগার্ডের মাইকিং ‘আগামীকাল সন্ধ্যায় আঘাত হানতে পারে রেমাল’ পলাশে রেললাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত মরদেহ উদ্ধার ভুল চিকিৎসায় প্রাণ গেল স্কুল ছাত্রীর গরু হাটে ব্যাহত ২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৯ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর শিক্ষা ব্যবস্থা এমপি আনার হত্যা: প্রধানমন্ত্রী জানেন পিতা হারানোর কষ্ট – এমপি কন্যা কোন বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সিলেটে এ বছর কুরবানী পশু প্রস্তুত ৪ লাখ ৩০৩৯৭ দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা নিজ অবস্থান থেকে সতর্ক থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়া সম্ভব: ডিসি আরিফুজ্জামান এমপি আনারের লাশ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই: ডিবি