খতনা করাতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু: দুই চিকিৎসককে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

রাজধানী টাইমসের সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

রাজধানীর মালিবাগে জে এস ডায়াগনস্টিক সেন্টারে খতনা করাতে গিয়ে শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার দুই চিকিৎসককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী এই নির্দেশ দেন।

একই সঙ্গে দুই চিকিৎসককে দুই দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তার রিমান্ডের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়।

দুই চিকিৎসক হলেন জে এস ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক ডা. এস এম মুক্তাদির ও মাহাবুব মোরশেদ।

বিজ্ঞাপন

বিকেলে তাঁদের আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও হাতিরঝিল থানার এসআই রুহুল আমিন প্রত্যেককে সাত দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন। অপর দিকে রিমান্ড বাতিল চেয়ে আবেদন করেন আসামিদের আইনজীবী। শুনানি শেষে আদালত তাঁদের রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে দুই দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রুহুল আমিন আজকের পত্রিকাকে বলেন, রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। আদালত রিমান্ডের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। তবে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার রাতে মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার জে এস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে খতনা করতে গিয়ে শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিশুর নাম আহনাফ তাহমিদ (১০)। সে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় শিশুর বাবা মোহাম্মদ ফখরুল আলম বাদী হয়ে রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় মামলা করেন। মামলায় তিনজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় তিন-চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ১৯ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৮টার দিকে আহনাফ তামহিদকে সুন্নতে খতনা করানোর জন্য তার বাবা ফখরুল আলম হাতিরঝিল থানার জে এস হাসপাতালের চিকিৎসক এস এম মুক্তাদিরের কাছে নিয়ে যান। তিনি ওই সময় কিছু টেস্ট লিখে দেন। ওই হাসপাতালেই টেস্টগুলো করে ছেলেকে নিয়ে বাসায় চলে যান। রাতে চিকিৎসক ফোন করে জানান, রিপোর্টগুলো ভালো আছে। সুন্নতে খতনা করতে কোনো সমস্যা নেই।

পরদিন ২০ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে ৮টায় ছেলের সুন্নতে খতনা করানোর জন্য স্ত্রী খায়রুন নাহারকে সঙ্গে নিয়ে তিনি হাসপাতালে যান। পরে ছেলেকে অপারেশন থিয়েটার নিয়ে যাওয়া হয়।

আসামিরা জানান, তাঁদের ২০-২৫ মিনিট সময় লাগবে। তখন আহনাফের পিতা-মাতা বাইরে অপেক্ষা করতে থাকেন। ৩০-৩৫ মিনিট পর ওটি রুমের দরজায় নক করলে তাঁরা জানান আরও কিছুক্ষণ সময় লাগবে। এভাবে এক ঘণ্টা পার হওয়ার পর আহনাফের পিতা ফখরুল ওটি রুমে প্রবেশ করতে চাইলে তাঁকে নিষেধ করে আরও কিছু সময় অপেক্ষা করতে বলা হয়।

পরবর্তী সময় সন্দেহ হলে ফখরুল জোর করে ওটি রুমে প্রবেশ করেন। সেখানে দেখতে পান, তাঁর ছেলে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। তার বুকে হাত দিয়ে চাপাচাপি করছে এবং নাকে ও মুখে নল দিয়ে রক্ত বের হওয়া অবস্থায় দেখেন। তখন চিকিৎসক এস এম মুক্তাদিরকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি সঠিক উত্তর দেননি।

ছেলের এই অবস্থা দেখে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্য হাসপাতালে নিয়ে যেতে চাইলে তাঁরা কর্ণপাত না করে নিজেরাই তার বুকে চাপাচাপি, হাত-পা মালিশ করতে থাকেন। তখন জোর করে তাকে ওটি রুম থেকে বের করে দেন তাঁরা।

দুই ঘণ্টা পার হলেও তাঁরা ছেলের বর্তমান শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সঠিক তথ্য না দিয়ে কালক্ষেপণ করতে থাকেন। পরে আবার জোর করে ওটি রুমে প্রবেশ করে ফখরুল জানতে পারেন তার ছেলে আহনাফ তামহিদ মারা গেছে।

রিমান্ড আবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, সুন্নতে খতনা করতে করতে গিয়ে আহনাফ মারা যায়। এতে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসকদের দায়িত্বে অবহেলার পরিচয় পাওয়া যায়। কেন মারা গেল কিভাবে মারা গেল তা উদ্‌ঘাটন করার জন্য এবং চিকিৎসকদের যোগ্যতা ও দক্ষতা যাচাই-বাছাইয়ের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ ধার্য করা হয়েছে আগামী ২৮ মার্চ।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল rajdhanitimes24.com এ লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয়- মতামত, সাহিত্য, ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার ছবিসহ লেখাটি পাঠিয়ে দিন rajdhanitimes24@gmail.com  এই ঠিকানায়।

শীর্ষ সংবাদ:
রানীশংকৈলে কুলিক নদীতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু নানা আয়োজনে পাইকগাছায় পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ পালন গোয়ালন্দ উপজেলা প্রশাসনের বর্ণাঢ্য আয়োজনে মঙ্গল শোভাযাত্রা সিঙ্গাইর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন কাউখালীতে নববর্ষ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত ৫ মিলিয়ন ডলারে মুক্তি পেয়েছে এমভি আব্দুল্লাহ ডলারভর্তি ব্যাগ পাওয়ার ৮ ঘণ্টা পর ২৩ নাবিকদের মুক্তি দেয় দস্যুরা কচুয়ায় নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন মাটিরাঙ্গায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপন ত্রিমুখী হামলা ঠেকাতে ব্যস্ত ইসরায়েল, সঙ্গ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র বর্ষবরণে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি যশোরের ঐতিহ্যবাহী শুড়িরডাঙ্গায় চড়কপূজা অনুষ্ঠিত পাইকগাছার সোলাদানায় লিজ ঘের দখলে ব্যর্থ হয়ে প্রান নাশের হুমকি: আদালতে মামলা শ্রীপুরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা দিলেন মৌসুমি সরকার ঝালকা‌ঠির সুগন্ধা নদীর স্রোতে ভেসে গেলো স্কুলছাত্র সরকার হজযাত্রীদের খরচ কমানোর কারণে হজ যাত্রী সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে: ধর্মমন্ত্রী মুন্সিগঞ্জে আ.লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ হয়ে তরুণের মৃত্যু পহেলা বৈশাখে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই লালমোহনে প্রতিপক্ষের হামলায় গর্ভবতী নারীসহ আহত ৩ ইসরায়েলে হামলার বিষয়ে ইরানকে সতর্ক করলেন বাইডেন