তেল-সার-শ্রমিকের মূল্য বৃদ্ধিতে হিমশিম অবস্থা শরণখোলার চাষিদের

রাজধানী টাইমসের সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন

সরকারি উদ্যোগ না থাকা, ঘন ঘন প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং অতিমাত্রায় লবণাক্ততার কারণে উপকূলীয় বাগেরহাটের শরণখোলায় এক সময় শুধুমাত্র আমন ধানের চাষ হতো। এর পর বছরের বাকি সময়টা খিল পড়ে থাকতো হাজার হাজার বিঘা জমি। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে সেই অবস্থা থেকে অনেকটা অগ্রসর হয়েছেন চাষিরা। সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা, কৃষি বিভাগের পরামর্শ এবং উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহারে সেই জমিতে এখন চাষ হচ্ছে বোরেসহ তিন ফসল।

তবে, তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় চাষের খরচও বেড়েছে দ্বিগুণ। এতে চাষিরা হিমশিম খেলেও এবার বোরো চাষের পরিমানও বেড়েছে। গতবছর চাষ হয়েছিল ৪০০ হেক্টরে। সেখানে এবার চাষ হয়েছে ৬৫০ হেক্টর জমিতে। কলের লাঙলের শব্দে মাঠজুড়ে এক অন্যরকম আবহ তৈরী হয়েছে। বোরো ধানের চারা সংগ্রহ ও রোপণের ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা।

উপজেলার মধ্যে খোন্তাকাটা গ্রামের চাষি সাদেক হোসেন হাওলাদার, উত্তর খোন্তাকাটা গ্রামের লতিফ তালুকদার, ইউনচ গাজী এবং উত্তর রাজাপুর গ্রামের শাহজাহান সরদার ও রুহুল মীর বলেন, আগে আমরা শুধুমাত্র আমন ধান চাষ করতাম। তাতে যে পরিমাণ ফসল পেতাম তা দিয়ে আমাদের বছরের খোরাকি হতো না। উপজেলা কৃষি অফিসের পরামর্শে গত দুই বছর ধরে আমরা বোরো ধানের চাষ করে বেশ লাভবান হচ্ছি।

বিজ্ঞাপন

এসব চাষিরা জানান, গতবছর টিলার দিয়ে এক বিঘা জমি শুধু চাষ করতে দুই হাজার টাকা লাগতো। কিন্তু তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার এবার রাগছে সাড়ে তিন হাজার থেকে চার গাজার টাকা। শ্রমিকের মজুরি ৫০০টাকা থেকে হয়েছে ৬০০-৭০০টাকা। কুচরা বাজারে সারের দামও বেড়েছে কেজিতে ৬-৭ টাকা। সব মিলিয়ে অন্যান্য বছর এক বিঘা জমি চাষাবাদে খচর হতো ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা। সেখানে এবার খরচ পড়ছে ১০ থেকে ১১ হাজার টাকা।

খোন্তাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে উপজেলা পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে বিভিন্ন হাট বাজারে বোরো ও রবি শষ্য চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। একারণে আমার ইউনিয়নে এখন বোরো ধান, সরিষা, আলুসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক চাষ হচ্ছে।

শরণখোলা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবব্রত সরকার বলেন, শরণখোলায় কয়েক বছর আগে শুধুমাত্র আমন ছাড়া অন্য কোনো ধান চাষ হতো না। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের (কৃষি বিভাগ) এবছর ৬৫০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হচ্ছে। যা গতবছরের চেয়ে দেড় শ’ হেক্ট বেশি। গতবার প্রতি হেক্টরে সাত মেট্রিক ট্রন ফসল হয়েছে। যেখানে আমন হয়েছিল মাত্র চার থেকে সাড়ে চার মেট্রিক টন।

বিজ্ঞাপন

কৃষি কর্মকর্তা জানান, উপকূলীয় এই অঞ্চলের জমিতে লবণাক্ততা বেশি। বন্যা-খরাসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগও হয় ঘন ঘন। তাই সেই সব দিক বিবেচনা করে লবণ সহিষ্ণু জাতের উচ্চ ফলনশীল ব্রি-৬৭, ৯৭,৯৯, বিনা-১০, বঙ্গবন্ধু ধান-১০০, ব্রি হাইব্রিড-৫, ব্রি-৭৪, ৮৮, ৮৯, ৯২ হাইব্রিড এসএল-৮, এইচ উইন-৩০২, এসএম-১, ব্যবিলন-২ ধানের চাষ করা হচ্ছে। এসব জাত থেকে বিঘাপ্রতি গড়ে ২৫ মন করে ধান ঘরে পারবেন চাষিরা।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল rajdhanitimes24.com এ লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয়- মতামত, সাহিত্য, ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার ছবিসহ লেখাটি পাঠিয়ে দিন rajdhanitimes24@gmail.com  এই ঠিকানায়।

শীর্ষ সংবাদ:
কোন বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সিলেটে এ বছর কুরবানী পশু প্রস্তুত ৪ লাখ ৩০৩৯৭ দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা নিজ অবস্থান থেকে সতর্ক থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়া সম্ভব: ডিসি আরিফুজ্জামান এমপি আনারের লাশ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই: ডিবি মতলব উত্তরে বিকাশ ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা এমপি আনোয়ারুল হত্যা: সন্দেহভাজন তিনজন ৩ দিনে ফ্ল্যাট থেকে বের হন ঠাকুরগাঁওয়ে জিংক ধানের উপকারিতা ও গুনাগুণ সম্পর্কে কৃষকদের অবহিতকরণ দ্বিতীয় ধাপে আরও কমল ভোটের হার, এবার রাজনীতিকে দুষলেন সিইসি ভূরুঙ্গামারীতে মোবাইল কিনে না দেওয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা কাউখালীতে রাত পোহালেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন রাত পোহালেই শেরপুরের দুই উপজেলায় ভোট মতলব উত্তরে সাজাপ্রাপ্ত আসামি ১৭ বছর পর আটক ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর খবরে বেড়েছে তেলের দাম কচুয়ায় প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সাতক্ষীরার আম দেশের গন্ডি পেরিয়ে এখন ইউরোপে লালমোহনে দুদকের উদ্যোগে ২য় পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মরদেহ উদ্ধার ভোলায় ষষ্ঠ ধাপে ভোটগ্রহণ আগামীকাল ডিবি কার্যালয়ে হেফাজত নেতা মামুনুল হক যশোরে ভোট বর্জনের আহ্বানে বিএনপির লিফলেট বিতরণ