এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশগুলোতে বৈদেশিক ঋণ বাতিলের দাবি

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on print
ফাইল ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) জীবাশ্ম জ্বালানিতে এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশগুলোর বৈদেশিক ঋণ বাতিলের দাবি জানিয়েছে ‘পরিবর্তন’ ও ‘ক্লিন’ নামে পরিবেশবাদী দুই সংগঠন।

এশিয়ার জনগণের বিদ্যমান অর্থনৈতিক, স্বাস্থ্যগত ও জলবায়ু সংকটের কথা বিবেচনায় জি-৭ ভুক্ত দেশগুলোর কাছে তারা এ দাবি জানান।

সোমবার (২৭ জুন) বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই দাবিতে একটি র‌্যালি বের করে সংগঠন দুটি। র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের পেছন থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রূপ নেয়।

বিজ্ঞাপন

সমাবেশে পরিবর্তন’র উন্নয়ন কর্মী আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, আমাদের সরকারের ইতোমধ্যে একটা বড় অংকের ঋণের বোঝা রয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তারা তারা ঋণ নিয়েই চলছে। এমনভাবে চলতে থাকলে এই ঋণ শোধ করতে গিয়ে আগামী ১২ বছর পর থেকে আমাদের দেশ একটা বড় অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মধ্যে পরতে পারে। আমরা বাংলাদেশকে শ্রীলঙ্কার মতো ঋণের বোঝায় বিপর্যস্ত অবস্থায় দেখতে চাই না। তাই আমাদের উচিত শ্রীলঙ্কার ভুল থেকে শিক্ষা নেয়া।

তিনি আরও বলেন, সত্যিকার অর্থে জি-৭ ভুক্ত ধনী দেশগুলো আমাদের কাছে অনেক বড় অঙ্কের অর্থের সমপরিমাণ ঋণী জলবায়ু ঋণের দিক দিয়ে যা তারা পরিশোধ করেনি। এর পরিমাণ ১০০ বিলিয়ন ডলার ছাড়াবে। যদি তারা তাদের জলবায়ু ঋণ পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয় তাহলে দক্ষিণের দেশগুলোর ২০৩০ সাল নাগাদ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ৬ ট্রিলিয়ন ডলার সমপরিমাণ পর্যন্ত অর্থের ক্ষতি হতে পারে।

পরিবর্তনের পরিচালক রাশেদ ইবনে ওবায়েদ রিপন বলেন, জি-৭ ভুক্ত দেশগুলো ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি গ্রিন হাউজ গ্যাস নির্গমনকারী দেশগুলোর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত এবং তারা তাদের এই নির্গমন চালিয়ে যাচ্ছে। আর তাই তারা জলবায়ু বিপর্যয়ের জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ী। আমরা ২০২২ সালের মধ্যে তাদের জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধের সর্বশেষ অঙ্গীকার শক্তভাবে পালন করার আহ্বান করছি।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, তাদেরকে সব ধরনের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বিনিয়োগ বন্ধ করতে হবে, কোন ধরনের ফাঁকফোকর বা ব্যতিক্রম থাকতে পারবে না এবং তাদের তাদের জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগের অর্থ নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিনিয়োগের জন্য বরাদ্ধ করতে হবে যাতে নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে পৌঁছানোর লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সহজ হয়। এছাড়াও তাদেরকে তাদের জলবায়ু ঋণ পূরণ করতে হবে এবং জলবায়ু বিপর্যয় থেকে বাচার জন্য উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি’র সভাপতি নুরুজ্জামান খান। এসময় বিভিন্ন বিভাগের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
নিয়ামতপুরে বিনামূল্যে গ্রীষ্মকালীন পেঁয়াজ বীজ বিতরণ ঝিনাইদহে বাস ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত টানা ১৬ দিনের সফর শেষে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে তরুণ কলাম লেখক ফোরামের পূর্ণাঙ্গ কমিটি পুলিশ হেফাজতে দুদকের সাবেক উপপরিচালকের মৃত্যু, স্বজনদের দাবি হত্যা সিকিমে আকস্মিক বন্যা, ২৩ ভারতীয় সেনা নিখোঁজ ইশতেহার তৈরির জন্য মতামত চায় আ.লীগ খেলাপি ঋণে শ্রীলঙ্কার কাছাকাছি বাংলাদেশ জেলা মাদকদ্রব্যের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ মেহেরপুরে গোপন বৈঠক চলাকালে জামায়াতের ৩জন রোকন আটক লাকসামে বাস-ট্রাক্টর মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও ২ জন আহত বরিশালে পারিবারিক দন্ধে শাশুড়ীকে খুনের অভিযোগ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছেলেকে বলাৎকার, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার মেডিকেলে ভাঙচুর ও র‍্যাগিংয়ের ঘটনায় ইবির ৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার ১৬ দিন পর মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন রাজশাহী কলেজের শিক্ষার্থী নিশাদ ডিজিটাল কানেক্টিভিটি টেকসই উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে : স্পিকার নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বীরকন্যা’ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলায় ভিড়েছে রাশিয়ান জাহাজ কেন্দুয়ায় বিএনপির ৪ শতাধিক নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা খালেদা জিয়ার মৃত্যুর সময় হয়ে গেছে: প্রধানমন্ত্রী