একটি ঘরের আশায় স্বপ্ন বুনছে আলো রানী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on print

পটুয়াখালীর গলাচিপায় একটি ঘরের আশায় অসহায় পরিবারটি আজও স্বপ্ন বুনছেন। উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের মধ্য হরিদেবপুর গ্রামের আলো রানী (৫৫) এর পরিবার অসহায় জীবনযাপন করছে। অন্যের বাড়িতে আশ্রিত থেকে চলছে তাদের বসবাস।

জানা যায়, গোলখালী ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের বৈষ্ণব দাসের স্ত্রী আলো রানী। তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা পাঁচজন। সন্তানদেরকে নিয়েই তারা ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখছে। কিন্তু আলো রানীর স্বামী বৈষ্ণব দাসের একমাত্র আয়ে সংসার চলছে খুব কষ্ট করে। তাদের সন্তানদের লেখাপড়া করানো অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

বৈষ্ণব দাস অন্যের বাড়ীতে দিনমজুর কাজ করে। এ বিষয়ে বৈষ্ণব দাস জানান, আমার জন্মের পরেই দারিদ্রতা আমাদের নিত্য সঙ্গী। আশা ছিলো ছেলেটা আমার সাথে সংসারের হাল ধরবে। কিন্তু ছেলেটা বিবাহ করে আলাদা থাকে আমাদের খোজখবর নেয় না।

বিজ্ঞাপন

এখন আমি একা অসহায় হয়ে পড়েছি। আমি অসুস্থ থাকলে ঘরের উনুন জলে না। সে দিন না খেয়ে থাকতে হয়। আমার দুই শতাংশ জায়গা থাকলেও টাকার অভাবে তাতে ঘর তোলা হয় নি। তাই বাধ্য হয়ে অন্যের ঘরে আশ্রিত হিসেবে থাকি। কিন্তু নিজের ঘর না থাকলে তো পরাধীন ব্যক্তির মতো মনে হয় নিজেকে। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একটি ঘর পেলে বাকি জীবনটা সুখে কাটাতে পারতাম। অন্য মানুষের বাড়িতে আর কতদিন থাকবো।

এ বিষয়ে বৈষ্ণব দাসের স্ত্রী আলো রানী জানান, আমার স্বামীর রোজগারে আমাদের সংসার চলে। থাকি অন্য মানুষের বাসায়, খুব কষ্টে। অন্য মানুষের বাড়িতে থাকি বলে প্রায় সময়ই তাদের কথা শুনতে হয়। আমারকে যদি সরকারীভাবে একটি ঘর দিত তাহলে আমরা সরকারের কাছে চির ঋণী থাকতাম। এ বিষয়ে গোলখালীর হরিদেবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিক বিল্পব রায় বলেন, বৈষ্ণব দাসের পরিবার অনেক কষ্ট করেন। তাদের পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

সরকারীভাবে তাদেরকে একটি ঘর দিলে পরিবারটির অনেক উপকার হবে। গোলখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি খালেক মাস্টার বলেন, আলো রানীর দুই শতক জমি থাকলেও নিজের কোনো ঘর নেই। সরকারীভাবে একটি ঘর তারা প্রাপ্য। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য রবিউল মৃধা বলেন, আমার ওয়ার্ডে ওদের মত অসহায় খুব কম লোকই আছে। বাপ-দাদার দুই শতক জমি আছে। টাকা না থাকায় সেখানে কোনো ঘর তুলতে পারে নাই। তাদের একটি ঘর খুব প্রয়োজন।

বিজ্ঞাপন

গোলখালী ইউপি চেয়ারম্যান নাসিরউদ্দিন হাওলাদার বলেন, আলো রানীর পরিবার আসলেই অসহায়। তার স্বামী অন্য মানুষের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছে। সরকারীভাবে আলো রানীর পরিবার একটি ঘর পেলে তারা সুন্দরভাবে জীবন যাপন করতে পারবে।

শীর্ষ সংবাদ:
ভাঙ্গুড়ায় শীতের সকালে ঘন কুয়াশার সঙ্গে বৃষ্টি, ভোগান্তিতে শ্রমজীবীরা বিবাহিত ছাত্রলীগ নেতা যখন বুড়িচং উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক! বৃষ্টি ও শীত নিয়ে যা জানাল আবহাওয়া অধিদপ্তর বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে পিছু হটার প্রশ্নে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র রাজী ফখরুলের থাবা থেকে বাঁচার ক্ষমতা কারও নাই: লিটন সরকার বিএনপি-জামায়াত সারাদেশে বিশৃঙ্খলার ষড়যন্ত্র করছে : ওবায়দুল কাদের মাটিরাঙ্গায় দুই ইট ভাটায় অভিযান দেড় লাখ টাকা জরিমানা কালাইয়ে আমন ধান ও চাল সংগ্রহ শুরু ভাঙ্গুড়ায় লোকালয়ে মুখপোড়া হনুমান, দেখতে উৎসুক জনতার ভিড় কুবিতে ভলিবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ফিন্যান্স ও বাংলা বিভাগ সাদিক আব্দুল্লাহর প্রার্থিতা বাতিল চান জাহিদ ফারুক সমিতির নামে বিল ইজারা নিয়ে লুটপাট অনুমতি মেলেনি আ.লীগের ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশের ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মানববন্ধন নিয়ে যা জানাল ডিএমপি অবরোধের সমর্থনে আগুন জ্বালিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের  অবরোধ,  গ্রেফতার-৩ যশোরে অবৈধ অস্ত্র, বোমা ও  বিস্ফোরকসহ ৪ সন্ত্রাসী গ্রেফতার বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় শেখ হাসিনা কাউখালীতে নবান্ন উৎসব উদযাপিত মতলবে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে খোলা আকাশে বসবাস ভাঙ্গুড়ায় জাতীয় নির্বাচন ঘিরে ছাপাখানাগুলোতে জোর প্রস্তুতি